নিত্য নতুন খবরের পর খবর সেকেন্ডের সাথে বের হচ্ছে নতুন নতুন সব ব্রেকং, সঠিক তথ্য সবার আগে প্রতি সেকেন্ডের সাথে নয় বরং প্রাপ্ত তথ্য গুলো যাছাইয়ের পরে আপনাদের সামনে তুলে ধরাই আমাদের মুল লক্ষ। আপনাদের যে কোন তথ্য প্রয়োজনে আমাদের সাথেই থাকুন। অনলাইনের সব ভাইরাল তথ্য গুলো সত্যতা প্রমান বের করে আপনাদের সামনে উপস্থাপন করাই আমাদের কাজ। কোন তথ্য দেখেই সেটাকে মুল তথ্য ভেবে নিবেন না। একটু অপেক্ষা করুন এবং সঠিক ও প্রমানসহ তথ্য যাছাইয়ের পরে সেটা মেনে নিন।

আপনাদের সামনে সঠিক ও নির্ভুল তথ্য পরিবেশন করাই আমাদের মুল লক্ষ, কাজেই সার্বিক প্রমান ছাড়া কোন তথ্যকে সঠিক মনে করে গুজবে কান দিবেন না। আজকের যেই বিষয়’টি নিয়ে কথা বলবো তা নিচের লেখায় পড়ে নিন, ধন্যবাদ…

হঠাৎ কারো গলা ব্যথা বা জ্বর জ্বর ভাব হতে পারে। সঙ্গে থাকতে পারে কাশিও। ঘরোয়া কিছু পদ্ধতি প্রয়োগ করলে এই সমস্যা এড়ানো যায়

ভিনেগার-মধু : এক কাপ গরম পানি, ১ টেবিল চামচ আপেলের রস ও ১ টেবিল চামচ মধু মিশিয়ে সেই পানীয় পান করলে গলা ব্যথায় বেশ উপকার পাওয়া যায়।

অ্যাপেল সাইডার ভিনেগার : আধা কাপ গরম পানির সঙ্গে ২ টেবিল চামচ অ্যাপেল সাইডার ভিনেগার মিশিয়ে গার্গল করলে গলা ব্যথা উপশম হয়।

রসুনের কোয়া : রসুন একটি অন্যতম প্রাকৃতিক উপাদান, যা ব্যাকটেরিয়াকে ধ্বংস করার সঙ্গে সঙ্গে গলা ব্যথার জন্য দায়ী জীবাণুও ধ্বংস করে। একটি রসুনের কোয়া দুই-তিন ভাগে টুকরো করে বা থেঁতলে নিয়ে তা মুখের ভেতর রেখে চুষতে হবে। এটা দিনে একবার করলেই হয়।

বেকিং সোডা : ১ কাপ গরম পানির সঙ্গে আধা চা চামচ লবণ ও আধা চা চামচ বেকিং সোডা মিশিয়ে মুখের ভেতর রেখে মিশ্রণটি দিয়ে কুলকুচি করতে হবে দিনে দু-তিনবার।

গোলমরিচ : ১ কাপ গরম পানি, আধা চা চামচ গোলমরিচ গুঁড়া, ১ চা চামচ মধু ভালো করে নেড়ে মিশিয়ে নিতে হবে। এরপর হালকা গরম থাকতে পান করতে হবে।

লবঙ্গ : এক-দুটি লবঙ্গ মুখে দিয়ে রাখুন। নরম হয়ে এলে এটি চিবোতে থাকুন চুইংগামের মতো। চাইলে মুখে পানি রেখেও চিবোনো যায়, খেয়ে ফেললেও ক্ষতি নেই।

আদা-জল : ঠাণ্ডাজনিত সমস্যায় আদা-জল বেশ কার্যকর। ২ ইঞ্চি পরিমাণ লম্বা আদার টুকরা চামড়া ছিলে ছোট টুকরা করে কেটে থেঁতলে দুই-তিন কাপ পানির মধ্যে সিদ্ধ করতে হবে তিন থেকে পাঁচ মিনিট। চাইলে মধু অথবা লেবু দেওয়া যেতে পারে। চায়ের মতো উষ্ণ থাকতে থাকতে পান করে ফেলুন।

দারচিনি চা : এক-দুটি দারচিনির টুকরা নিয়ে এক-দুই কাপ পানিতে সিদ্ধ করে সেই পানি পান করা যেতে পারে। আবার চায়ের সঙ্গে মিশিয়েও খাওয়া যেতে পারে।

News Reporter

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *